আসছালামুলাইকুম। আমি DXN নেটওয়ার্কার। DXN নিয়ে এই ওয়েবসাইটে টুকিটাকি লেখালেখি করি। আমার এই লেখাগুলি পড়ে যদি কারো কোন উপকারে আসে তাতেই আমি ধন্য। ভাল থাকবেন সবাই। 👉💗🌵🍄👑🌹💝

  • সমস্ত পোষ্ট:7
  • সমস্ত মক্তব্য:755

DXN বিজনেস করতে হইলে পন্য ব্যাবহার করতে হবে।

DXN এ মেম্বারশিপ নেয়ার পরে যে করনিও / কাজ তা হল, প্রথমে নিজের জন্য পন্যগুলি নেয়া কি কি পন্য আপনি ব্যবহার করবেন এক এক করে সবগুলি পন্য নিজে ব্যাবহার করতে হবে। নিজের ফ্যামিলি মেম্বারদের কে পন্য ব্যাবহার করাতে হবে। কারন এক এক জনের মন মানুষিকতা একেক রকম স্ত্রীর মন এক রকম সন্তানদের মন আরেক রকম মায়ের মন এক রকম বাবার মন আরেক রকম ভাই বা বোনের মন আরেক রকম কারো সাথে কারো মন মানুষিকতার মিল নেই।এই জন্য আস্থা আনার জন্য DXN এর পন্য আগে নিজে এর নিজের ফ্যামিলি মেম্বারদের মাঝে শেয়ার করতে হবে। এর পরে বাহিরে বন্ধু – বান্ধবদের মাঝে শেয়ার করতে হবে।DXN এসেছে DAXEN থেকে DAXEN একটি চায়নিজ ওয়ার্ড যার অর্থ, বিশ্বাস যোগ্য বা নির্ভর যোগ্য আপনি DXN কে বিশ্বাস করতে পারেন ও DXN এর উপর নির্ভর করতে পারেন এর জন্যই আগে নিজে ও নিজের ফ্যামিলি মেম্বারদের মধ্যো শেয়ারিং করতে হবে।
যখন DXN এর পন্যগুলি আপনার নিজ ফ্যামিলি মেম্বারদের মধ্যে শেয়ার করবেন এর শেয়ারের মাধ্যমে আপনি বুজতে পারবেন বাহিরের লোকজনে কি পন্যগুলি পছন্দ করবে কি না?

গ্রামে বা শহরে লেকচার দিয়ে অনেকে অনেক কিছু বিক্রি করে। এই লেকচার শুনে আমরা অনেকেই অনেক কিছু ক্রয় করি। কিসের উপর ভিত্তি করে? বিশ্বাসের উপর ভিত্তি করে। যে পন্যটি আমি ক্রয় করলাম তার কাজ এবং যে লোকটি লেকচার দিল। এই দুটোর মিল হলে পুনরায় আরো পন্য ক্রয় করতে যাব।
বা অনেক বন্ধু – বান্ধব কেই বলবো। আর যদি কথা ও কাজের মিল না থাকে। তাহলে যে লেকচার দিয়ে পন্যটি বিক্রি করলো। তাকে খুজে ও পাওয়া যাবে না ও পুনরায় আমি ও ক্রয় করবো না। কারন আস্থা বা বিশ্বাস দুটোই হারিয়ে গেছে।
DXN বিজনেস করতে হইলে পন্য ব্যাবহার করতে হবে। সেমিনারে এ্যটেন করতে হবে। সেমিনারে এ্যটেন না করলে কিছুই শিখতে পারবেন না। আর পন্য ব্যাবহার না করলে পন্যের উপর আপনার আস্থা আসবেনা।
আমরা যখন এক জন কে মেম্বার বানাই। মেম্বার বানিয়ে-ই বলি ভাই আপনি ছয়জন লোক মেম্বার বানান। বা এক সপ্তা / মাস হয়ে গেলো এখনতো একজন লোক মেম্বার বানাইতে পারলেন না। আমরা কখনো ও বলিনা আপনি যে পন্যগুলি নিয়েছেন। সেই পন্যগুলি কি ব্যাবহার করেছেন কি না??
যে লোকটি মেম্বার হলো সে পন্য ব্যাবহার ও করে না। এবং কোন সেমিনারে ও এ্যটেন করে না। তাহলে সে কি শিখবে বা কি বলেই এক জন কে মেম্বার বানাবে!
একজন DXN মেম্বার কে কম করে হলেও দশ থেকে বার টি সেমিনার শুনতে হবে।
সবশেষে আর একটি কথা বলবো সেটা হলো-
DXN এর পন্য অরর্গানিক ন্যাচারাল কোন ক্যামিকেল নেই আমরা সবাই জানি
এই কথাগুলি। লোকজনকে জানাতে হবে বাহিরের পন্য আর DXN এর পন্য এক জিনিস না। এই কথাটা বুঝানোর জন্য DXN এর পন্যগুলি ব্যাবহার করাতে হবে ও সেমিনার শুনাতে হবে। পন্য ব্যাবহার করা ও সেমিনার শুনা এর কোন বিকল্প নাই।

বন্ধুরা ভুলে ভরা জীবনে ভুল হওয়াটাই সাভাবিক,আমার লেখায় যদি কোন ভুল হয়ে থাকে,তাহলে ক্ষমা করবেন)এবং এই পোস্ট যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। আর যদি এই ধরনের আরো ভালো কিছু আপনার জানা থাকে তাহলে এই সাইটে রেজিষ্ট্রেশন করে আপনিও শেয়ার করতে পারেন।আপনার নাম রেজিষ্ট্রেশন করতে চাইলে

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।